নাগরিক টেলিভিশনের লালমনিরহাটের সেই জহিরন

বিনোদন প্রতিবেদক :
যারা এই পৃথিবীকে প্রতিনিয়ত সুন্দর করে তুলছেন। গল্পের বইয়ে তারা নেই, নেই উইকিপিডিয়াতেও। তাদের ভিডিও ভাইরাল হয় না, নেই তাদের লক্ষ লক্ষ লাইক। তারা বাঁচেন প্রেরণা দিতে, আলো জ্বালাতে। প্রচারহীন সেই সব মানুষদের গল্প নিয়ে নাগরিক টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন বার্জার লাক্সারি সিল্ক ‘#নন্দিনী’।

অনুষ্ঠানটি এবারের পর্বে অতিথি হিসেবে থাকছেন লালমনিরহাটের ৯৫ বছর বয়সী জহিরন বেওয়া। যিনি বার্ধক্য এবং সামাজিক নানা প্রতিবন্ধকতা জয় করে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। যে বয়সে সাধারণত অন্যের ওপর নির্ভরশীল হতে হয়, সে বয়সে তিনি সাইকেল চালিয়ে ঘুরে ঘুরে নিজ এলাকার মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

প্রায় ৪৫ বছর ধরে এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে হয়ে উঠেছেন এলাকার প্রিয় নানী। অনুষ্ঠানে তার সঙ্গে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকছেন জনপ্রিয় সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, বাকের ভাইখ্যাত অভিনেতা ও সাংসদ আসাদুজ্জামান নূর।

ড. রুবানা হকের পরিকল্পনায় অনুষ্ঠানটির গ্রন্থনা ও রচনা করেছেন তানভীর জনি। নাবিলা মারজুকের প্রযোজনায় এটি উপস্থাপনা করেছেন আজরা মাহমুদ। অনুষ্ঠানটির নির্বাহী প্রযোজক অভিষেক সিংহ রায় এবং সহকারী প্রযোজক মামুনুর রশিদ। ২১ ডিসেম্বর (শনিবার) রাত ৯টায় নাগরিক টেলিভিশনে প্রচার হবে ‘#নন্দিনী’। পুনঃপ্রচার হবে রোববার ভোর ৩ টা, ৫টা ৩০ মিনিট এবং সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটে।

অনুষ্ঠানটি প্রসঙ্গে নাগরিক টেলিভিশনের অনুষ্ঠান প্রধান কামরুজ্জামান বাবু বলেন, ‘আমাদের চারপাশের অনেক নারী আছেন যারা প্রতিনিয়ত সমাজের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। সেসব নারীদের আমরা এ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়ে থাকি।

তাদের জীবনের অজানা বিভিন্ন তথ্য দর্শকের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করি। তার সঙ্গে পরিচিত একজন অতিথিও থাকেন। সে ধারাবাহিকতায় এবারের পর্বে জহিরুন বেওয়া ও আসাদুজ্জামান নূরকে অতিথি করা হয়েছে। আমার বিশ্বাস অতীতের বিভিন্ন পর্বের মতো এবারের পর্বটিও দর্শকপ্রিয়তা পাবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.