কুমিল্লায় কার্যালয়ে ঢুকে কাউন্সিলরসহ দুজনকে গুলি করে হত্যা

কার্যালয়ে ঢুকে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেলসহ (৫২) দুজনকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরও তিনজন।

সোমবার (২২ নভেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে সন্ধ্যায় দুজন মারা যান।

নিহত অন্যজন হলেন পাথরিয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা হরিপদ সাহা (৫০)। গুলিবিদ্ধরা হলেন আওলাদ হোসেন রাজু, মো. জুয়েল ও মো. রাসেল। তাদের কুমেক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

কুমেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. মহিউদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বিকেল ৪টার দিকে কাউন্সিলর সোহেল তার কার্যালয়ে বসে কাজ করছিলেন। এসময় মুখোশধারী একদল দুর্বৃত্ত তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে তিনি গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। তার সঙ্গে থাকা আরও চারজন গুলিবিদ্ধ হন।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কাউন্সিলর সোহেল ও হরিপদ সাহা মারা যান। গুলিবিদ্ধ অন্যদের কুমেক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ  বলেন, কাউন্সিলর সোহেল মারা গেছেন বলে শুনেছি। বিষয়টি আপনারা হাসপাতাল থেকে খবর নেন। আমরা অন্যান্য বিষয় সামাল দিচ্ছি।

কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত বলেন, সোহেলের শরীরে অন্তত ১০টি গুলি লেগেছে। তিনি এলাকায় একজন জনপ্রিয় ব্যক্তি ছিলেন। আমরা এ হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.