বাবার লাশ রেখে এইচএসসি পরীক্ষায়

বাড়ীতে বাবার লাশ রেখে কান্নাভেজা চোখে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে মেরাজ হক নামে এক শিক্ষার্থী। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বৃহস্পতিবার সাইফুর রহমান সরকারি কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দেয় সে।

সে উপজেলার বড়ভিটা এলাকার শরিফুল হক মিল্টনের ছেলে। তার বাবা বুধবার মধ্যরাতে হার্ট অ্যাটাকে নিজ বাড়ীতে মৃত্যুবরণ করেন।

তার সহপাঠী রবিউল জানান, মেরাজ হক পরীক্ষা দিতে গিয়ে বাবার শোকে পুরো সময়ই কেঁদেছে আর লিখেছে খাতায়। আর এ দৃশ্য দেখে তার সহপাঠী, শিক্ষকসহ পুরো কেন্দ্রেই নেমে অনেকটা শোকের ছায়া নেমে আসে। এলাকাবাসীরা জানান, বধুবার রাত ১২টার দিকে হার্ট অ্যাটাক করে নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন তার বাবা। বাবাকে হারানোর পর ভেঙে পড়লেও বৃহস্পতিবার সে কাঁদতে কাঁদতে পরীক্ষার হলে যায়। আমরা সকলেই তাকে অনেক শান্তনা দিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহনের জন্য প্রেরণ করি।

সাইফুর রহমান সরকারি কলেজর অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব মো. রফিকুল ইসলাম জানান, পরীক্ষার্থীর বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা শোনার পর তাকে উৎসাহ দিই। সে সবার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষায় অংশ নেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.