লালমনিরহাটে  নিখোঁজের তিন বছর পর এক ব্যক্তিকে জীবিত উদ্ধার

লালমনিরহাট প্রতিনিধি।।

নিখোঁজের তিনবছর পর অটোচালক শাহাজাহান আলী (৪০) কে জীবিত উদ্ধার করেছে লালমনিরহাট সদর থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার(২৭ জানুয়ারী) দুপুরে লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহা আলম অটো চালক শাহাজাহানকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তির নাম শাহাজাহান আলী ওরফে নাহিদ। তিনি জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের ঈশ্বরকুল এলাকার হবিবর রহমানের ছেলে।

পুলিশ সুত্রের জানা যায়, ২০১৯ সালের ২৭ মার্চ সদর উপজেলার হাড়িভাঙ্গার শ্বশুর বাড়ি থেকে রাতের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বাহিরে বের হওয়ার পর শাজাহান আলী নাহিদ নামে এক ব্যক্তি নিখোঁজ হয়। অনেক খোজাঁখুজির পর স্বামীকে না পেয়ে গত ৮ এপ্রিল ২০১৯ সালে স্ত্রী মতিয়া বেগম(৩২) লালমনিরহাট সদর থানায় স্বামী নিখোঁজের একটি সাধারন ডায়েরী করেন। নিখোঁজ হওয়ার কয়েকদিন পরে তার গ্রামের বাড়ির পাশ থেকে শাহাজাহানের রক্তমাখা লুঙ্গী ও জামা উদ্ধার হয়। উদ্ধার হওয়া জামা ও লুঙ্গি স্বামী শাহাজাহানের বলে সনাক্ত করেন তার স্ত্রী মতিয়া বেগম।

এর পর শাহাজাহানের গ্রামের বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা এলাকায় শাহাজাহানকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরেই হত্যা করে লাশ গুম করেছে প্রতিপক্ষ।

দীর্ঘ তিন বছর পর নিখোঁজ হওয়া সেই শাহাজাহানকে জেলার প্রাণকেন্দ্র মিশনমোড় চত্বর থেকে তাকে জীবিত উদ্ধার করেছে সদর থানা পুলিশ।

এর পর জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে তিন বছর নিজে থেকে আত্মগোপন করেছিলেন শাহাজাহান আলী নাহিদ। গতকাল বুধবার (২৬ জানুয়ারী) রাতে মিশনমোড় চত্বর থেকে তাকে উদ্দার থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।

লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শাহা আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারী) দুপুরে তাকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠান হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.