কুড়িগ্রামে জমিজমা নিয়ে বিরোধে চাচাকে পিটিয়ে হত্যা

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে চাচা জবেদ আলীকে (৫৫) পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে দুই ভাতিজার বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার কেদার ইউনিয়নের চলুয়াবাড়ির বালাবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জবেদ আলী নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা থানার কেদার ইউনিয়নের ঢলুয়াবাড়ি মৌজার বালাবাড়ি গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, চাচা জবেদ আলীর সঙ্গে দুই ভাতিজা শফিকুল ইসলাম ও শহিদুল ইসলামের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে জবেদ আলী জমিতে ইরি রোপণের জন্য পানি নিতে গেলে ভাতিজা শফিকুল ও শহিদুলসহ বাড়ির লোকজন জবেদ আলীকে লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি পেটাতে থাকেন।

এ সময় লাঠির আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ঘটনাস্থলেই জবেদ আলী মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কচাকাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহেদুল ইসলাম বলেন, নিহত ব্যক্তির দুই ভাতিজা ছাড়াও ঘটনার সঙ্গে আরও ব্যক্তি জড়িত রয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ বুধবার কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.