২ বছর পর বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে টুরিস্ট ভিসা চালু

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ দুই বছর বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ‍টুরিস্ট ভিসায় ভারত-বাংলাদেশ যাত্রী পারাপার বন্ধ থাকার পর মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) থেকে ফের তা চালু হয়েছে। টুরিস্ট ভিসা চালু হওয়ায় বেনাপোল চেকপোস্ট ব্যবসায়ীদের মাঝে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন সূত্রে জানা যায়, করোনা ভাইরাসের কারণে ২০২০ সালের ১৩ মার্চ বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে দু’দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে করোনার সংক্রমন একটু কমলে মেডিকেল ও ব্যবসায়ী ভিসা পাওয়া যাত্রীরা দু’দেশের মধ্যে যাতায়াতের অনুমতি পায়। পরবর্তীতে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশন অফিস টুরিস্ট ভিসা চালু করলেও ওই ভিসায় শুধু বিমানে যাওয়ার অনুমতি পায়।

গত ১৩ মার্চ বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ বহিরগমন-২ এর যুগ্মসচিব মো. শাহরিয়াজ (পিএএ) স্বাক্ষরিত পত্রে জানানো হয় যে, ভারতীয় নাগরিকদের বাংলাদেশে আগমনের জন্য শর্ত সাপেক্ষে ভিসা প্রদানে নির্দেশ ক্রমে এ বিভাগের সম্মতি জানানো হলো। বাংলাদেশ সরকার এ সিদ্ধান্ত দেওয়ার পর ভারত সরকারও একইভাবে টুরিস্ট বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা চালু করে এবং ৩ মার্চ থেকে সড়ক পথে টুরিস্ট ভিসা ইস্যু করেছে।

২০২২ সালে নতুন টুরিস্ট ভিসা পাওয়া ৭-৮ জন বাংলাদেশি যাত্রী বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারত ভ্রমণে গেছেন।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহম্মেদ জানান, ভারতীয় হাইকমিশন ৩ মার্চ থেকে নতুন টুরিস্ট ভিসা চালু করেছে। ২০২২ সালে দেওয়া নতুন ভিসায় কয়েকজন যাত্রী ভারতে গেছেন। তবে আগে পাওয়া ভিসায় কোনো যাত্রী ভারতে যেতে পারছেন না।

২০২২ সালে নেওয়া টুরিস্ট ভিসার যাত্রীরা বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে ভ্রমণ করতে পারবেন বলে তিনি জানান।