মেডিকেলে ভর্তি নিয়ে চিন্তায় পীরগঞ্জের দীপ্তি রানী

মেডিকেলে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার দীপ্তি রানী। মেডিকেলে সুযোগ পেলেও ভর্তি নিয়ে চিন্তায় পড়েছে তার পরিবার। মেয়ের পড়াশোনার খরচ জোগাতে চিন্তিত তার মৎস্যজীবী বাবা।

দীপ্তি রানী পীরগঞ্জ পৌরসভার উজিরপুর মাঝিপাড়ার মৎস্যজীবী ধলু চন্দ্রের মেয়ে। পেশায় জেলে হলেও মেয়ের অদম্য ইচ্ছায় লেখাপড়ায় উৎসাহ দিয়ে আসছেন তিনি।

২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন দীপ্তি রানী। দীপ্তি পীরগঞ্জের সরকারি শাহ আব্দুর রউফ কলেজ থেকে এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন। এর আগে পীরগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেন।

দীপ্তির একমাত্র ছোটবোন দীপা রানী পীরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজে মানবিক বিভাগ থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে পড়ছেন।

দীপ্তির বাবা ধলু চন্দ্র বলেন, ঝিলে-বিলে মাছ ধরে হাট-বাজারে বিক্রি করে যা পাই তা দিয়েই সংসার চলে। দুই মেয়ের পড়াশোনার খরচ জোগাতে হিমশিম খেতে হয়। এরপরও মেয়ের অদম্য ইচ্ছাশক্তিতে বাধা দেইনি। শেষ পর্যন্ত মেয়ের পড়াশোনার খরচ জোগাতে পারবো কি না তা নিয়ে চিন্তিত।

দীপ্তি রানী বলেন, অভাব-অনটনের সংসারে অনেক ইচ্ছাই পূরণ হয়নি। কষ্ট করে পড়ালেখা চালিয়ে আসছি। চিকিৎসক হয়ে মা-বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে চাই। এ জন্য সবার আশীর্বাদ কামনা করি।