ফেনসিডিল আমদানির অনুমতি চায়, আ. লীগ নেতা

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

লালমনিরহাটের আদিতমারী থানা আয়োজিত ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠানে লালমনিরহাট পুলিশ সুপারের উপস্থিতে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম প্রধান তার বক্ত্যবে শুরুতে তিনি বলেন, আমি খোলা মেলা কথা বলি তাতে জেল হবে না ফাঁস হবে হোক, আমি হক কথা বলি তিনি বলেন, বিষয়টি বঙ্গবন্ধু কন্যার দৃষ্টি আকর্ষণ করা যায় কি না শুধু ফেনসিডিলের কারনে প্রতিদিন হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হচ্ছে তাই ফেনসিডিল আমদানি করে রাজস্ব আয় বাড়াতে বঙ্গবন্ধু কন্যার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুল ইসলাম প্রধান।

তিনি আরও বলেন, আমি নিজেও এক বোতল ফেনসিডিল খেয়েছি। ঘুম ছাড়া কিছুই হয় না ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠানের তিনি একথা বলেন।

এদিকে লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপারের সামনে ফেনসিডিল খাওয়ার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করার একটি ভিডিও ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে এতে সমালোচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ এই নেতা।

এর আগে গত সোমবার (১১ এপ্রিল) দুপুর দেড়টায় আদিতমারী থানা আয়োজিত ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠানে এসপি’র উপস্থিতিতে এ বক্তব্য দেন তিনি।

এ সময় আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আদিতমারী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ মোল্লা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিম মিয়া, আদিতমারী থানার ওসি তদন্ত মোজাম্মেল হক, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর কাদের মিয়া, ভাদাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কৃষ্ণ কান্ত বিদু, কমলাবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহমুদ ওমর চিশতিসহ উপজেলার আট ইউনিয়নের ইউপি সদস্য, শিক্ষক, সমাজকর্মী, সামাজিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,  ব্যাবসায়ী, কৃষক, মসজিদের ঈমাম, মন্দিরের পূজারি, অবসরপ্রাপ্ত চাকুরিজীবী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজন অংশ নেন।

আজিজুল ইসলাম প্রধান লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এবং আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সম্পাদক ও সারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান।

ভিডিওতে দেখা গেছে, আজিজুল ইসলাম বলেন, ভারতে ফেনসিডিল মাত্র ৩৫ টাকা। এই ফেনসিডিলের কারণে প্রতিদিন হাজার কোটি টাকা ভারতে পাচার হচ্ছে। আমার তিন ছেলে মাস্টার্স পাস করেছে। তাদের নিষেধ করলেও গোপন জিনিসের ওপর আরও আগ্রহী হয়ে খাচ্ছে। ভারতে গিয়ে আমি নিজেও এক বোতল খেয়েছি, ঘুম ছাড়া কিছু হয় না। ভারতে ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলেছি, দেশের ফেনার গান ও তুষ্কা সিরাপের মতই ফেনসিডিল।এটা খাইলে শুধু ঘুম ধরে।

তিনি আরও বলেন, ভারত থেকে ৩৫ টাকায় ফেনসিডিল কিনে ৭০ টাকা ট্যাক্স নিয়ে ১০০ টাকায় বিক্রি করলেও ব্যবসা হবে রাজস্ব বাড়বে সরকারের। তাই বিষয়টি নিয়ে উচ্চ মহলে আলোচনা করা দরকার বলে দাবি করেন আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুল ইসলাম প্রধান।

তার এমন বক্তব্যে অনুষ্ঠানের সবাই হাসা হাসি করতে থাকেন অনুষ্ঠানের সভাপতি আদিতমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোক্তারুল ইসলাম কৌশলে তার বক্তব্য থামিয়ে দেন । তার এমন বক্তব্যে হতভম্ব হয় অনুষ্ঠানের সবাই। আওয়ামী লীগ নেতার এ বক্তব্যের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিধি,লালমনিরহাট পুলিশ সুপার আবিদা বলেন, থানায় এসে মানুষ সেবা নিবে। কোনভাবেই হয়রানির শিকার যেন না হয় সেদিকে আমরা খেয়াল রাখছি। দ্রুত সময়ে যাতে সবাই পুলিশের সাহায্য পায় সেজন্য আমরা নির্দেশ দিয়ে রেখেছি। পুলিশ, জনগণ মিলেমিশে থেকে সমাজের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক অটুট রাখতে হবে। শুধু পুলিশ চাইলেই হবেনা, আপনাদের সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। আমাদেরকে তথ্য দিবেন আমরা ব্যবস্থা নিবো। মাদকসহ সকল অপকর্ম রুখতে সকলের সহযোগিতা চাই।
তিনি আরও বলেন, মানুষের দোরগোড়ায় পুলিশী সেবা পৌঁছে দিতে বিট পুলিশিং চালু রয়েছে। প্রত্যেকটি ইউনিয়নে বিট অফিসার আছেন। যে কেউ চাইলেই সেই বিট অফিসারের সাথে তাৎক্ষণিক যোগাযোগ করে সেবা নিতে পারে। উপর মহলে জানানোর প্রয়োজন পরেনা। দ্রুত সময়ের মধ্যেই পুলিশের সেবা পাওয়া যায়। এছাড়াও আসন্ন ঈদকে ঘিরে চুরি, ছিনতাই রোধ ও জানজট নিরসনে পুলিশের কার্যক্রম আরও বৃদ্ধি করার দিকে জোর দেওয়া হয়।
এ বিষয়ে লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এবং আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সম্পাদক ও সারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম প্রধানের সাথে তার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে (০১৭১০-৮৭০২৪৪) একাধিকবার যোগাযোগ করতে চাইলে তিনি তার ফোনটি রিসিব করেন নি।