পাটগ্রামে আ’লীগের সম্মেলনে দু’গ্রুপে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ২৫

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটের পাটগ্রামে আওয়ামী লীগের সম্মেলন কে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে গুলিবিদ্ধসহ ও পুলিশসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ও টিয়ার সেল নিপে করে পুলিশ।

সোমবার (২৫ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে উপজেলার শ্রীরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শ্রীরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলনে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, জলিল হোসেন (৩৫), রুস্তাম আলী (২৯), রুবেল ইসলাম (৩৩),রিফাত হোসেন (২০), শহিদুল ইসলাম (৩৫),রিয়াদ হোসেন (১৮),কমিজ উদ্দিন মেম্বর (৪০), রায়হান (৩৫)। এদের মধ্যে ৪ জনকে গুরুত্বর অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, উপজেলার শ্রীরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শ্রীরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সম্মেলনে শ্রীরামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল হাশেম ও রফিকুল আলম সভাপতি পদে প্যানেল দেন। প্রধান অতিথি স্থানীয় সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন সম্মেলনস্থলে উপস্থিত হওয়ার আগে সভাপতি পদের দুই গ্রæপের ¯েøাগান দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষ বাধে।

খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কয়েক রাউন্ড টিয়ার সেল ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে পুলিশ। এতে গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ৩০ জন নেতাকর্মী ও সমর্থক আহত হন। এ সময় নেতাকর্মীদের ছোড়া ইট-পাটকেলে ৩ পুলিশ সদস্য আহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় বুড়িমারী স্থল বন্দর ও শ্রীরামপুর এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শ্রীরামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল হাশেম বলেন, রফিকুলের লোক জন সম্মেলন শুরুর আগে আমার লোকজনের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে হালা চালায় এত দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয় ।

পাটগ্রাম থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন্ত কুমার মোহন্ত বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.